হেরেও আলো ছড়ালো বাংলাদেশ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীমঃচ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচেই আলো কাড়ল বাংলাদেশ। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ৩০৬ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুড়ে দেয় টাইগাররা । এরই মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ল বাংলাদেশ। এরপরও বাংলাদেশের ইনিংস শেষে শতরান করা তামিম বলেছিলেন ১৫ থেকে ২০ রান কম হয়েছে জয়ের জন্য । শেষ পর্যন্ত তামিমের কথাই ঠিক হলো । জয়ের কাছে এসেও লক্ষ্যটা অর্জনে ব্যার্থ হলো বাংলাদেশ । ব্যাটিং উইকেটে বোলারদের  ব্যার্থতায় , ইংল্যান্ডের  মরগানের ফিফটি আর রুটের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে সহজেই ৮ উইকেটে জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড । হেইলস করেন ৯৫ রান ।

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক এউইন মরগ্যান। তামিম-সৌম্য এবং তামিম-ইমরুলের জুটি বাংলাদেশকে দারুণ শুরুর ভিত এনে দেয়। এরপর মুশফিককে নিয়ে তামিমের ১৫০ ছাড়ানো জুটিতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩০৫ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ গড়ে বাংলাদেশ।উদ্বোধনী জুটিতে তামিম-সৌম্য ৫৬ এবং দ্বিতীয় উইকেটে তামিম-ইমরুল ৩৯ রানের জুটি গড়লে মজবুত ভিত পায় বাংলাদেশ। এরপর তৃতীয় উইকেটে মুশফিককে নিয়ে ১৫১ বলে ১৬৬ রানের রেকর্ড জুটি গড়ে বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহ এনে দেন তামিম।
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তৃতীয় উইকেটে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এতদিন কুমার সাঙ্গাকারা ও উপুল থারাঙ্গার দখলে ছিল। ২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার এই দুই তারকা ব্যাটসম্যান ১৬৫ রানের জুটি গড়েছিলেন। বৃহস্পতিবার লন্ডনের কেনিংটন ওভালে ১৬৬ রানের জুটি গড়ে সেটিকে ছাপিয়ে রেকর্ড গড়েন তামিম-মুশফিক। এছাড়া বাংলাদেশের প্রথম জুটি হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেঞ্চুরি জুটি গড়লেন এই দুজন।
২০০৭ সালে ইংল্যান্ড হেরেছিল ৩১৬ তুলেও। ভারত সেদিন পরে ব্যাট করে দুই বল হাতে রেখে দুই উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয়। ২০১৬ সালেও ওভাল দেখেছে এমন নজির। সেবার জয় পায় ইংল্যান্ড। শ্রীলঙ্কার করা ৩০৯ রানের জবাব দিতে নেমে ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ১১ বল হাতে রেখে জয় পায় তারা। আজও সেই রেকর্ড ধরে রাখল ইংল্যান্ড । বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি আর পার্টটাইম বোলার সাব্বির একটা করে উইকেট পান ।
ছবি: গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com