সানি লিওনের নতুন ট্র্যাক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পর্নগ্রাফি থেকে প্রোডাকশন হাউস। পাঞ্জাবের মেয়ে সানি লিওন এবার অন্য ভূমিকায়।এই নতুন ভূমিকা অবশ্য নতুন কোনো সিনেমায় নয় একেবারে বাস্তব জীবনে। ‘সানিসিটি মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেনমেন্ট’, নামে নিজের প্রেডাকশন হাউজ খুলেছেন সানি। মিডিয়ায় তিনি বলেছেন, “আমি আমার কেরিয়ার নিয়ে সবসময়ই ফোকাস থেকেছি। প্রোডাকশনের দুনিয়ায় আসা নিয়ে আমি আর ড্যানিয়েল অনেক দিন আগে থেকেই পরিকল্পনা করছিলাম। এটাই সঠিক সময়, তাই আর দেরি না করে ভারতীয় টেলিভিশনে কমার্শিয়াল প্রোডিউস করতে নেমে পড়লাম”। সানির সুরে সুর মিলিয়ে স্বামী ড্যানিয়েলও বলছেন, “আমি এবং সানি দুজনেই একটি প্রোডাকশন ব্যাকগ্রাউন্ড থেকেই এসেছি। সুতরাং, প্রোডাকশন হাউস এবং প্রোডিউসর হওয়া আমার কাছে খুবই স্বাভাবিক একটা বিষয়”।

এই শিখরে পৌঁছাতে সানি পেরিয়েছেন দুর্গম চড়াই উতরাই। এভারেস্ট ছুঁতে গেলে যে পরিশ্রম আর ধৈর্য্য একজন পর্বতারোহীর থাকে, এই শিখরে ওঠার কাজে সানি লিওন দেখালেন সেই একই রকম ধৈর্য্য এবং সাহস। পর্ন তারকা থেকে ভারতীয় টেলিভিশনের রিয়্যালিটি শোর সেনসেশন হয়ে ওঠা, তারপর বলিউড ডেবিউ। এরপর আর পিছনে তাকাতে হয়নি তাকে। সময় যত এগিয়েছে সানি দখল করে নিয়েছেন ভারতীয় ছবির দর্শকদের মন। তার কদরও বাড়তে থাকে বলিউডে। আইটেম নাম্বার আর সানি লিওন, যেন একে ওপরের পরিপূরক হয়ে উঠেছে। নিজের কেরিয়ারের মধ্য গগণে এসে সানি এবার ট্র্যাক বদলে ফেলছেন। অর্থাৎ সানি লিওন এখন কেবল বলিউডের বিষ্ফোরকই নন, তাঁর পরিচয়ের তালিকায় নবতম সংযোজন তিনি এখন প্রোডিউসরও।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com