শুভ জন্মদিন ফারুক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

১৯৪৮ সালের ১৮ আগস্ট আকবর হোসেন পাঠান দুলু জন্মগ্রহণ করেন তিনি আমাদের কাছে ফারুক নামেই পরিচিত। তাঁর বাবা আজগার হোসেন পাঠান। শৈশব-কৈশোর ও যৌবনকাল কেটেছে তাঁর পুরান ঢাকায়। বর্তমানে বসবাস করছেন উত্তরাতে নিজ বাড়িতে। পাঁচ বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট।

সুজনসখী ছবির একটি দৃশ্য

ফারুক স্কুল জীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। ১৯৬৬ সালে তিনি ছয় দফা আন্দোলনে যোগ দেন এবং এ সময়ে তার নামে প্রায় ৩৭টি মামলা দায়ের করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করেন
১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ফারুকের অভিষেক ঘটে। তার বিপরীতে ছিলেন আরেক কিংবদন্তি নায়িকা কবরী। এর পর ১৯৭৩ সালে খান আতাউর রহমানের ‘আবার তোরা মানুষ হ’, ১৯৭৪ সালে নারায়ণ ঘোষ মিতা পরিচালিত ‘আলোর মিছিল’-এ অভিনয় করে আলোচনায় আসেন।
১৯৭৫ সালে সুপার ডুপার হিট ‘সুজন সখি’ ও ‘লাঠিয়াল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এবং সে বছর ‘লাঠিয়াল’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য সেরা পার্শ্ব চরিত্রে অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। এরপরে ১৯৭৬ সালে ‘সূর্যগ্রহণ’ ও ‘নয়নমনি’, ১৯৭৮ এ শহীদুল্লাহ কায়সারের উপন্যাস থেকে নির্মিত ‘সারেং বৌ’, আমজাদ হোসেন এর ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ সহ অনেক কালজয়ী চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।
চলচ্চিত্রের বাইরে ফারুক একজন ব্যবসায়ী। বর্তমানে গাজীপুরে অবস্থিত নিজের শিল্প প্রতিষ্ঠান ফারুক নিটিং ডাইং এন্ড ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে নিয়োজিত আছেন।
ফারজানা পাঠানকে ভালোবেসে বিয়ে করেন ফারুক । তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। কন্যা ফারিহা তাবাসসুম পাঠান ও পুত্র রওশন হোসেন
রুপালী পর্দার কিংবদন্তি নায়ক ফারুকের জন্মদিন আজ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভক্ত এই চিত্রনায়ক ১৫ আগস্টের সেই নির্মম হত্যাকাণ্ডের পর আর কখনোই নিজের জন্মদিন পালন করেননি। সংবাদমাধ্যমকে ফারুক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান খুব আদর করতেন তাকে। এই আগস্টেই এই মহান নেতাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। তাই আগস্ট মাসটি শোকের মাস হিসেবেই পালন করেন ফারুক।আজ তাঁর জন্মদিনে আমাদের শুভেচ্ছা রইলো।

বিনোদন ডেস্ক

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com