মেলিনা ট্রাম্পের স্বাক্ষর নিয়ে চলছে আলোচনা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমেরিকার ফার্স্ট লেডি মেলিনা ট্রাম্প সবসময়ই গণমাধ্যমের প্রবল সংবাদের বিষয় হয়ে আছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার সবচাইতে আলোচিত-সমালোচিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবার পর মেলিনার মডেলিং যুগের বেশকিছু খোলামেলা ছবি প্রকাশ করে দেয় ইংল্যান্ডের প্রখ্যাত পত্রিকা ‘GQ’। এই ছবি নিয়ে বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমে তোলপাড় চলে কিছুদিন। তারপর পত্রিকার পাতায় গুঞ্জন শুরু হয় মেলিনার নিউ ইয়র্ক বসবাসের কারণ নিয়ে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এখন হোয়াইট হাউজে বসবাস করলেও তার স্ত্রী মেলিনা এখনো নিউ ইয়র্কের বাসিন্দা হয়ে আছেন। এ নিয়েও সাংবাদিকদের কৌতুহলের সীমা নেই। সুন্দরী এই মার্কিন ফার্স্ট লেডি এখন তাই প্রবল সংবাদের বিষয়।
গেল মাসে আবারও তিনি হয়ে উঠেছেন সংবাদের বিষয়। এবার সাংবাদিক আর পত্রিকার গবেষণার বিষয় মেলিনা আর ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাক্ষরে হুবহু মিল। সম্প্রতি মেলিনাকে তার কাজের জন্য ভালোবাসার উপহার হিসেবে একটি নকল পশু চামড়ার কোট পাঠিয়েছিলেন হলিউডের বেওয়াচ সিরিজ খ্যাত অভিনেত্রী প্যামেলা এন্ডারসন।উপহার পেয়ে মেলিনা ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় প্যামেলাকে ফিরতি ধন্যবাদ জানিয়েছেন।সেই চিঠিতে মেলিনার স্বাক্ষরই আবারও নতুন করে তাকে আলোচনায় তুলে এনেছে। সাংবাদিকরা বলছেন মেলিনার সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের স্বাক্ষরের রয়েছে অদ্ভূত মিল।
একজন হাতের লেখা বিশেষজ্ঞ সেহলিয়া কার্টজ ইয়াহুকে বলেছেন, মেলিনার স্বাক্ষরটি দেখতে একেবারেই ট্রাম্পের মতো। বিষয়টি খুবই আশ্চর্য হবার মতো।দুজনের স্বাক্ষরই খাড়া খাড়া অক্ষরে করা এবং একই ধরণের মোটা ধাঁচের লেখা।
এই স্বাক্ষর নিয়ে এখন এমন গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছে যে, মেলিনার হয়ে সেই চিঠিতে স্বাক্ষর দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট স্বয়ং। প্রশ্ন উঠেছে ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই স্বাক্ষর করে কোটটি কি নিজের কাছেই রেখে দিয়েছেন?
ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকা অবশ্য এই ধুম্রজালের একটি গ্রহণযোগ্য সমাধান দিতে পেরেছে। পত্রিকাটি বলছে, সম্ভবত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও তার স্ত্রী ‘অটোপেন’ নামে একটি কলমে স্বাক্ষর করে থাকেন। আর সে কারণেই দুজনের স্বাক্ষর একরকম দেখাচ্চে। দুনিয়াজুড়ে খ্যাতিমান মানুষরা তাদের চিঠিপত্রের জবাব দিতে এ ধরণের কলম ব্যবহার করে থাকেন।
তবে এই স্বাক্ষর নিয়ে গবেষণা কিন্তু থেমে যায় নি। আমেরিকা ও ইংল্যান্ডের হস্তাক্ষর বিশেষজ্ঞরা ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাক্ষর পরীক্ষা করে বলছেন, এ ধরণের হাতের লেখা যার তিনি অত্যন্ত সাহসী, ক্ষমতালিপ্সু। একই সঙ্গে একরোখাও। মেলিনার হাতের লেখা পরীক্ষা করে তারা বলছেন, এ ধরণের হাতের লেখার মানুষরা আড়াল পছন্দ করেন।

বিনোদন ডেস্ক
তথ্যসূত্রঃ ইয়াহু নিউজ
ছবিঃ ডেইলি মেইল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com