মিটমাট হয়ে গেল ক্ষোভ আর বিদ্বেষ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

যৌথ প্রযোজনার অনিয়ম বন্ধের দাবিতে গত ২১ জুন সেন্সর বোর্ড ঘেরাও করে চলচ্চিত্র ঐক্যজোট। সেখানে অপ্রীতিকর পরিস্থিতির শিকার হন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য ও মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহের কর্ণধার ইফতেখারউদ্দিন নওশাদ।সেদিন শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয় ইফতেখারউদ্দিন নওশাদকে। বিষয়টি নিয়ে বেশ ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন চলচ্চিত্র মালিক সমিতি ও পরিবেশক সমিতি।অতঃপর  মামলাও করার চিন্তাও ছিল নওশাদের।

গতকাল রাতে সাংসদ ফিরোজ রশীদ ফোন করে নিজ বাসায় বিশেষ দাওয়াত দিলেন ইফতেখারউদ্দিন নওশাদকে।  রাতে সাংসদের ধানমন্ডির বাসায় হাজির হলেন সেন্সর বোর্ডের সদস্য ও মধুমিতা হলের কর্ণধার নওশাদ চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতির সভাপতি ইফতেখারউদ্দিন নওশাদ ।কিন্তু বাসায় ঢুকেই চমকে উঠলেন অন্য  অতিথিদের দেখে। তারা হলেন, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, সহসভাপতি রিয়াজ এবং প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খসরু।আর এ দাওয়াতেই মিটমাট হয়ে গেলো সবার মধ্যকার ক্ষোভ আর বিদ্বেষ।নওশাদ বলেন,  আমি সরকারি কাজে গিয়ে সেদিন লাঞ্ছিত হয়েছি। অথচ সরকার পক্ষ থেকে আমি সাপোর্ট পেলাম না। সেন্সর বোর্ড মামলা করলো না। কিন্তু চলচ্চিত্রের স্বার্থে আমাদের উদার হতে হবে। তারাও ‘সরি’ বললেন, এরপর তো আর কোনও কথা হতে পারে না।
নওশাদ আরও  বলেন, ‘সাংসদ ফিরোজ রশীদ আমাকে ডেকে নিয়ে গিয়ে রীতিমতো সারপ্রাইজ দিয়েছেন। এভাবে আমাদের মিটমাট হবে আমি জানতাম না,। শিগগিরই একটা সংবাদ সম্মেলন করে পুরো বিষয়টি জানাবো আমরা।’

বিনোদন ডেক্স

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com