মাশরাফি কি ফিরবেন?

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীমঃ ইতিমধ্যে দেশের ক্রিকেটের স্বার্থে ক্রিকেট প্রেমী প্রধানমন্ত্রী মাশরাফিকে তাঁর অবসরের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে অনুরোধ জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে কলম্বোতে লঙ্কানদের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয় পাওয়ার পর মাশরাফির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন শেখ হাসিনা। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে বৃহস্পতিবার লঙ্কানদের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে জয় পাওয়ার পর টাইগারদের অভিনন্দন জানিয়ে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী মাশরাফিকে ফোন করেন। এরপরই তাঁকে অবসর না নেয়ার জন্য বলেন।মাশরাফির সাথে কথা বলার পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গেও টেলিফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। জানা গেছে, ভারত সফর থেকে ফিরে এসে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি কথা বলতে পারেন অধিনায়ক মাশরাফি আর বিসিবির সভাপতির সঙ্গে ।

কোটি কোটি মানুষের প্রিয় মাশরাফি বিন মুর্তজার আকস্মিক টি-টোয়েন্টি  থেকে অবসর ঘোষণায় সমালোচনার ঝড় ওঠেছে দেশজুড়ে।এই সমালোচনার ঝড় দেখে বিস্মিত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।কানাঘুষা শোনা গেছে, মাশরাফির হঠাৎ করে টি টুয়েন্টিকে বিদায় বলার পেছনে হেড কোচ হাতুড়াসিংহের ইচ্ছা কাজ করেছে অন্তরাল থেকে। প্রকাশ্যে বিসিবির সভাপতি নেতৃত্ব দেন । মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে শ্রীলংকা থেকে ফেরত পাঠানোর পরও অধিনায়ক মাশরাফির জেদের কাছে পরাজয় বরণ করেন কোচ হাতুড়াসিংহকে । পরাজয়ের প্রতিশোধ  নিতে কোচ তিন ফরমেটে তিন অধিনায়ক চাইলেন বিসিবির সভাপতির কাছে । শ্রীলংকায় বসে তিনি সাকিব , তামিম আর অধিনায়কের সাথে কথা বলে কোচের ইচ্ছার কথা জানান । বিসিবি সভাপতির বক্তব্য বুঝতে কোন অসুবিধা হয়নি অধিনায়ক মাশরাফির। সহকর্মী খেলোয়াড়দের কাউকে কিছু জানান নি তিনি। শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম টি টুয়েন্টির আগে ইকোনমি ক্লাসে তড়িঘড়ি রুবেলকে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারটাও সহজে মেনে নিতে কষ্ট হয় তাঁর । সারা রাত না ঘুমিয়ে দেশে মাকে ফোনে প্রথম পদত্যাগের কথা জানান।  অশ্রু সিক্ত মা ছেলের ইচ্ছেকে আশীর্বাদ করলেন। এরপর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে । পরিবারের সবাই অধিনায়কের ইচ্ছেকে স্বাগত জানালেন। এরপর ম্যাচ শুরুর কিছু আগে ফেসবুকে ভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়ে টি টুয়েন্টি থেকে বিদায়ের কথা জানিয়ে স্টেটাস দেন।

মাশরাফির এই সিদ্ধান্ত তার এবং বাংলাদেশের অগণিত ক্রিকেট ভক্তদের আলোড়িত করে। বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে তাদের সেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশিত হয়। মাশরাফিকে টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়ক হিসেবে ফিরিয়ে আনতে মাশরাফির নিজের জেলা নড়াইলে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন করেছে বিক্ষুদ্ধ সমর্থকরা।

সারা ক্রিকেটবিশ্বে অনেক ক্রিকেটার টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরে যান কিংবা বাদ পড়ে যান; তাদের নিয়ে হইচই হয়না। কিন্তু একজন মাশরাফি বিন মুর্তজাকে নিয়ে এত হইচই হচ্ছে কেন তা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করলেন বিসিবি সভাপতি। শ্রীলংকা থেকে দেশে ফেরার পর সাংবাদিকদের অধিনায়ক জানান তিনি সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চান । তার টি টুয়েন্টিতে ফেরার সম্ভাবনা কম । অবশ্য প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধ ফিরিয়ে দিতে পারবেন কি না সেটা দেখার জন্য ভক্তদের অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুটা সময়।

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com