জিয়া জিয়া প্রথম সুন্দরী রোবট

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একজন চাইনিজ প্রকৌশলী একটি অত্যন্ত বাস্তবসম্মত মহিলা রোবট তৈরি করেছে যার প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে মানুষের সঙ্গে বিনয়ীর ভাবে যোগাযোগ করা।  রোবটটির ডাকনাম ” জিয়া জিয়া” ।  ইউনিভার্সিটি অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অফ চায়না (ইউএসটিসি) দীর্ঘ দিন গবেষণার পর জিয়া জিয়া তৈরি করেছে। এই সুন্দরী রোবট এখন মাত্র “মাইক্রো এক্সপ্রেশন” অর্থাৎ শুধু কিছু কথা বলতে পারে এর ডেভেলপ টিম জিয়া জিয়ার হাসি ও কান্না নিয়ে কাজ করছে।
জিয়া জিয়া সরাসরি মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে , কোন প্রশ্নের উত্তরে মাইক্রো এক্সপ্রেশন দিতে পারে। সংবাদ সম্মেলন চলাকালীন, শ্রোতাদের কাছ থেকে কেউ তার একটা ছবি তোলার চেষ্টা করছিল এতে তার প্রতিক্রিয়া ছিল – ” আমার পাসে এসে  আপনি  ছবি তুলবেন না , এতে আমাকে অনেক মোটা লাগবে “।  জিয়া জিয়ার শরীরের গঠন আকর্ষণীয় , তার কথা বলার সময় ঠোঁট নড়ার ঢং , চোখের নড়াচড়া এক বাস্তব রমণীর মতই । আর এই রোবট কে নারী তে রূপান্তর করতে তিন বছর সময় লেগেছে  প্রকল্প  দলের ।
“আমারা রোবটের “ডীপ লার্নিং” ক্ষমতা নিয়ে বেশ আশাবাদী”  বলেন দলের নেতা চেন জিয়াওপিং, তিনি আরও বলেন “আমারা এর ফেস এক্সপ্রেশন নিয়ে কাজ করছি যা মানুষের সঙ্গে আরও গভীরভাবে ইন্টারঅ্যাক্ট করতে পারবে” ।  “জিয়া জিয়া” ডেভেলপ টিম এখন পর্যন্ত পরিষ্কার করে বলে নাই যে এই রোবট কি কি কাজে ব্যবহার হতে পারে। প্রকল্প  দল বলছে সম্ভাব্য আপডেট মডেলে বাতিক্রম ও নতুর বৈশিষ্ট যোগ করা হবে। তাদের মতে এটি এখন পর্যন্ত অমূল্য উদ্ভাবনীয় পণ্য। অদূর ভবিষ্যতে, আমরা গভীরভাবে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে humanoid রোবট সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করতে সক্ষম হবে  ।

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com