নিজ হাতে রঙ্গিন সাজে পহেলা বৈশাখ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নাসরিন পিংকি

 বৈশাখ মানেই আনন্দ।ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সবাই মিলে বৈশাখের আনন্দ উপভোগ করে।বৈশাখে মনের মাধুরী মিশিয়ে যে যার মত করে রঙ্গিন সাজে সেজে উদযাপন করে।তবে পহেলা বৈশাখে যেমন থাকে মানুষের ভিড় তেমনি থাকে গরম।এ সব কিছু উপেক্ষা করেই সবাই সকাল থেকে মেতে উঠে আনন্দের মিছেলে।তবে এগুলোর সঙ্গে মানিয়ে সাজতেও সবাই অনেক ভালবাসে।এ দিনে অনেকে আবার পার্লার যায় সেখানেও গুনতে হয় লম্বা লাইন।আর জ্যামের কথা না হয় বাদ দিলাম। তাহলে আসুন আমরা জেনে নেই কি ভাবে নিজ হাতে মনের মাধুরী মিশিয়ে নিজেকে সাজিয়ে তোলা যায়।

    পোশাকের বা শাড়ি সঙ্গে মিল রেখে আমরা কিছু চুড়ি পড়তে পারি পোশাক যদি হাল্কা রঙের হয় তবে রঙ্গিন চুড়ি বেশি ভাল লাগবে।আর পোশাক বা শাড়ি যদি বেশি রঙ্গিন হয় তবে চুড়ি না পড়লেও খারাপ লাগবে না আর যদি চুড়ি পরেনও অল্প চুড়ি ভাল লাগবে।

    যারা খোঁপা করতে ভালবাসে তারা সামনে হাল্কা পাফ করে পেছনে খোঁপা করে বেলি ফুলের মালা পড়তে পারেন।আর যারা চুল ছাড়া রাখতে চান তারা চাইলে ফুলের বেরা মাথায় পড়তে পারেন।

    যেহেতু অনেক গরম থাকে তখন বেশি মেকাপ না নিয়ে ন্যাচারাল লুকটা রাখলেই ভাল দেখাবে।তবে টিপ পরতে পারেন ভাল লাগবে।যদি চান তবে হাল্কা বেজ নিলে নিতে পারেন।আর যদি ভিড়ে না যেতে চান কোন বাসায় দাওয়াত থাকে তবে ভারী সাজ নিতে পারেন সঙ্গে খোঁপা করে বেলি ফুলের মালা দিলে ভাল লাগবে।

    আমরা কানে গলায় রঙ্গিন পুতির মালা পড়তে পারি।আজ কাল বাজারে বাহারি পুতির মালা কানের দুল পাওয়া যায় পোশাক বা শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে পরতে পারি অথবা নান্দিক কিছু কানের ও গলার পাওয়া যায় বিভিন্ন বুটিকস গুলোতে সেগুলোও পরতে পারেন।

    পোশাক বা শাড়ির সঙ্গে মিল রেখে হাতে পার্স নিতে পারেন।বাজারে নান্দিক কিছু পার্স পাওয়া যায় যা সঙ্গে নিলে ভাল লাগবে।

    সব কিছুর সঙ্গে জুতা স্যান্ডেল যদি মানান সই না হয় তবে ভাল দেখায় না।এ দিনের জন্য চামড়ার মজবুত স্যান্ডেল পরা উচিৎ কারন এ দিনে অনেক রাস্তায় যান চলাচল নিষেধ থাকে ফলে হাটতে হয় বেশি মজবুত স্যান্ডেল না পরলে ছিড়ে যেতে পারে।আর যেহেতু গরম থাকবে খোলা স্যান্ডেল পরায় ঠিক হবে।খেয়াল রাখতে হবে যেন স্যান্ডেলটা নরম হয় তাহলে পায়ে ফোঁসা পরবে না।এত কিছুর পরে সঙ্গে একটা ছাতা নিতে ভুলবেন না যেন রোদের হাত থেকে বাঁচতে।

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com