ধর্ষকের দেশে সব দোষ নারীর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শামীমা জামান

শুধু বনানীর ধর্ষণ ঘটনা নিয়েই দালাল মিডিয়া এত সরব কেন ,ধর্ষণের বিচার না পেয়ে বাবা মেয়ের ট্রেনের নীচে আত্মাহুতি সহ অন্য ধর্ষণের বেলায় তারা চুপ কেন ! মেয়েগুলি খারাপ ,নাইট ক্লাব কালচার থাকবে আর ধর্ষণ থাকবেনা তা কেন ,ধর্ষকের বিচার হোক আপন জুয়েলার্স নিয়ে টানাটানি কেন, হোটেলে এসে ফুল দিয়ে বরণ করে ধর্ষণের মামলা করা … ব্লা ব্লা ব্লা ।এই জাতীয় কথার সুর যাদের তাদের জন্য আবারো এই ঘটনা নিয়েই লিখতে হচ্ছে।এরা আসলে কারা ?ধর্ষকেরই আপনজন আত্মার আত্মীয় নয়তো? হয়তো ! প্রধান ধর্ষক ধরা পড়েছে মুন্সীগঞ্জে ।তার হাত অনেক লম্বা।একজন প্রভাবশালী নেতার শেল্টারে ছিল সে।তার ফেসবুক আইডি  খোলা ।যদিও কোন নতুন পোস্ট নেই।ইন্সট্রাগ্রাম ও সচল ছিল।তার সুহৃদ রা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের বিকৃত দর্শন কে ছড়িয়ে দিয়ে ধর্ষণ কে জায়েজ করতে উঠেপড়ে লেগেছে।যারা সুহৃদ নয় কিন্তু একটু রক্ষনশীল মন তারাও এই জাতীয় কথা বলে মূলত মেয়েদুটিকে বার বার ধর্ষণ করছে।তারা কেন হোটেলে গেল ,ভাল মেয়ে হলে হোটেলে যেত নাকি ।এখানে বলা ভাল ধর্ষকেরই স্বীকারোক্তি থেকে জানা যায় তারা প্রফেশনাল নয় এমন মেয়ে চাইছিলেন তাই এই পরিকল্পনা ।কেউ বলেনা মেয়ে দুটি কিন্তু একেবারে একা যায়নি ,একজন পুরুষ বন্ধু সহ ওরা চারজন ই গিয়েছিল। এবং মেয়েটির বর্ণনা অনুযায়ী তারা প্রথমে যেতেও চায়নি। ধর্ষকেরা তাদের ভালমানুষী রূপ দেখিয়ে আশ্বস্ত করেছে ‘আমরা তো তোমাদের খেয়ে ফেলবনা।‘ , ‘আমার বার্থ ডে পার্টি তে সাকিব আল হাসান সহ অনেক সেলিব্রেটি আসে…’। আচ্ছা এই সেলিব্রেটি দেখার লোভ ও তো ওদের অপরিণত মননে নেতিবাচক বোধের জায়গা থেকে সাড়া দিয়ে বলতে পারে ‘যাই না তবে এতকরে বলছে যখন আমরা না গেলে কেকই কাটবে না !’ সেই সিদ্ধান্ত যে কত বড় ভুল ছিল তা ওরা ওই বীভৎস রাত দিয়ে বুঝেছে। ওদের পরিবারের সদস্যরাও নিশ্চয়ই আগে যে অনুশাসন দরকার ছিল তা এখন ওদের সঙ্গে ভাল মত ই করছে। কেন গিয়েছিলে এই কথা কি ওদের পরিবারের লোকজনেরা বারবার বলে ওদের রক্তাক্ত করেনি ? তাহলে আমরা আর না করি। আমরা বরং যার যার পরিবারের দিকে তাকাই ।আমার মেয়েটা কোথায় যায় ,কার সঙ্গে মেশে ,তার মনন কি চর্চা করছে তার খোঁজ নেই।আমার ছেলের বন্ধুবান্ধব সম্পর্কে জানি, তাদের জীবন যাপন সম্পর্কে ধারনা রাখি। ওদের সময় দেই।ওদের মুল্যবোধ কে তৈরি করে দেই। বন্ধু আর ফেসবুকই জীবন নয় ,বই পড়া ,বৃহৎ পরিবারের সকলের সঙ্গে যোগাযোগ ,দেশ ও সমাজের ভাল চিন্তা করা এই সব বিষয় গুলো  ওদের মস্তিস্কে প্রবেশ করাই ।বাস্তবতা তো এই, আমার পরিবারের সদস্যের মানসিক গঠন আমরা তৈরি না করে দিলে ঠিক বাইরের কেউ না কেউ তার মত করে করে ব্রেন ওয়াশ করে ফেলবে। সেই ব্রেন ওয়াশ কতটা ভয়ংকর হতে পারে তা সাম্প্রতিক ঘটনা গুলিতেই অনুমেয়। জঙ্গিবাদ ,বিকৃত যৌনাচার, খুন, মাদক আর এই সবের নিয়ন্ত্রক আমাদের মহান রাজনীতিবিদেরা।তাদের রাজনীতি আর প্রভাব থেকে আপনার সন্তান কে হেফাজতে রাখুন। না ,তেতুল বাবার হেফাজত নয় আপনার মমতা আর মুল্যবোধে আক্রান্ত করুন তাদের। যেইসব জ্ঞান আপনি ধর্ষিতা দের দিচ্ছেন ধর্ষকদের নিষ্পাপ করতে তা দয়া করে নিজেকে আর নিজের পরিবার কে দেন।

 জ্ঞান আজকাল সবাই অন্যকেই দেয় নিজেকে নয়। একজন টিভি নায়িকা কে দেখলাম বনানী ধর্ষণের কোন একটা নিউজ শেয়ার দিয়ে লিখেছেন ‘পাবলিক কি ঘাস খায় !’অথচ ধর্ষকের আইডি ঘুরে দেখা গেল তিনি মহান ধর্ষকের কোলের মধ্যে গিয়ে পাউটিং ফেসে পোজ দিয়ে আছেন !অনেক তারকার সঙ্গেই ধর্ষকের ছবি দেখা গেল ।তারকারাও জবাবদিহি করছেন, সেলফিতো সবাই তোলে তারকা দেখে ।কথা সত্য। কিন্তু তারকা তার হাত দুটি নিজের মধ্যে গুটিয়ে রেখেছেন না পরম মমতায় ধর্ষকের ঘাড়ে তুলে দিয়েছেন, মাথাটা কি তারকা ধর্ষকের ঘাড়ে হেলিয়ে দিয়েছেন ভালবাসায় ! রাতে অন্ধকারে অল্প পরিচিত অফিসের কাজে চেনা লোক কি নিজের সাইকেলে চেপে ক্যাপশন দেয় ‘ ফ্রেন্ডস ফরেভার …’।এসব দেখে কিন্তু বোঝা যায় কতটুকু সম্পর্ক থাকলে কতটুকু পোজ দেয়া যায় । হে ভদ্র চেহারার টিভি ব্যক্তিত্ব ! মিথ্যে না বলে আপনার চেহারার মত সততা নিয়ে বলতেই পারতেন ‘বন্ধু ছিল তবে এত খারাপ ভাবিনি’ । আসলেই তো ভাবেন নি। ভাবলে বা জানলে কি কেউ মেশে ! ঐ মেয়ে গুলিও ভাবেনি ।

  সব অপরাধী যখন ধরা পড়েছে তাদের বিচার কাজ টি যেন ঠিক ভাবে হয় সেটাই কি সবার কাম্য নয় । অপরাধী কিন্তু বলেছে ‘ভেবেছি মিডিয়ায় লেখালেখি কমলে বাবা আমাকে ঠিক ছাড়িয়ে নেবে…’। তাই লেখালেখি চলুক সমস্ত অন্যায়ের বিরুদ্ধে ।

ছবি: গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com