তাকে কি চেনা যায়

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ছবির এই নারীটিকে কি চেনা যাচ্ছে? একটি ট্রলি ঠেলে কোন এক ডিপার্টমেন্ট স্টোর থেকে বের হয়ে আসছেন একা। যদি বলা হয় এই মহিলার নাম অলিভিয়া নিউটন জন, চমকে উঠবেন?পাশের ছবিটি কিন্তু বলে দিচ্ছে তাঁর পরিচয়।

ক্যান্সার দমাতে পারেনি তাকে

কোন অলিভিয়া? সেই সঙ্গীত শিল্পী ও অভিনেত্রী অলিভিয়া নিউটন জন যিনি চার বার জিতেছেন গ্র্যামি পুরস্কার, যার এলপি পৃথিবীতে বিক্রি হয়েছে একশ মিলিয়ন কপি, যা এখন পর্যন্ত একটি রেকর্ড, যিনি অভিনয় করেছিলেন অভিনেতা জন ট্রাভোলটার সঙ্গে আলোচিত ‘গ্রিস’ ছবিতে।

অলিভিয়া নিউটন জনের সেই গান তো আজো আমাদের স্মৃতির দরজায় কড়া নেড়ে যায়, ‘জিমি জিমি, অথবা সামার নাইট…।

এই গায়িকা ও অভিনেত্রী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন নব্বইয়ের দশকে। তখন তার বয়স ছিল ৪৩। চিকিৎসা চলেছিল তখন। সুস্থও হয়ে উঠেছিলেন বেশ কয়েকটি অপারেশনের পর। সেই কর্কট রোগ আবার ফিরে এসেছে তার শরীরে। গত মে মাসে তিনি জানিয়েছেন সেই ক্যান্সার আবার ফিরে এসেছে। ছড়িয়ে পড়েছে দেহের পেছনের অংশে। ভক্তদের কাছে এই দুঃসংবাদটি প্রকাশ করার পর এই প্রথমবারের মতো ৬৮ বছর বয়সী অলিভিয়া নিউটন জন প্রথম ধরা দিলেন ক্যামেরার সামনে। তাঁর কাছের সূত্রগুলো জানিয়েছে অলিভিয়ার শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে তীব্র ব্যথা।

গ্রিস ছবিতে

হালকা প্রসাধন নিয়ে, চোখ জোড়া রোদ চশমায় ঢেকে দোকানে কেনাকাটা করতে বেরিয়েছিলেন তিনি। আর তখনই ফটো শিকারীদের ক্যামেরা শব্দ করে ওঠে ক্লিক ক্লিক। অলিভিয়া জানিয়েছেন, এবার তার নতুন লড়াই নিয়ে তিনি আশাবাদী। তিনি মনে করছেন এবারও তার ফিরে আসার গল্প ভক্তদের আশার কথাই শোনাবে। আমেরিকার সাপ্তাহিক ‘পিপল’ পত্রিকায় প্রকাশিত তাঁর লেখা ছোট্ট নোটের শেষে লিখেছেন, তার ব্যাপারে সকলের ভালোবাসা দেখে তিনি মুগ্ধ।

অলিভিয়ার দ্বিতীয় স্বামী জন এস্টেরলিংও স্ত্রীর সুস্থ হয়ে ওঠার ব্যাপারে আশাবাদী। পিপল পত্রিকাকে তিনিও জানিয়েছেন, অলিভিয়ার সুস্থ হয়ে ওঠার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

অলিভিয়া নিউটন জন এখন সময় কাটাচ্ছেন তাঁর ক্যালিফর্নিয়ার খামার বাড়িতে। অসুখের সঙ্গে লড়াই করতে করতেই নতুন একটি অ্যালবামের কাজ করছেন তিনি। লিভ অন নামে এই অ্যালবামে থাকবে তাঁর গাওয়া ১১টি গান।

অলিভিয়া নিউটন জন দীর্ঘদিন ধরে পরিবেশ এবং পশু অধিকার নিয়ে কাজ করছেন। এই কিছুদিন আগে অলিভিয়া ও এস্টেরলিং তাদের বিয়ের নবম বার্ষিকী উদযাপন করলেন।

সত্তর ও আশির দশকে অলিভিয়া নিউটন জন গান আর অভিনয়ের জগতে ছিলেন এক নক্ষত্রের নাম। ১৯৭৮ সালে জন ট্রাভোলটার বিপরীতে গ্রিস ছবিতে অভিনয় করে হৈ চৈ ফেলে দেন তিনি। এই ছবির মিউজিক ট্র্যাকও তখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে গিয়েছিল। গ্রিসের পরে তিনি আরো কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেন।

অলিভিয়া নিউটন জনের ছোট বোনও ২০১৩ সালে ব্রেন ক্যান্সারে মারা যান।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্র ও ছবিঃ ডেইলি মেইল

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com