ঠান্ডা ঠান্ডাই

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নাজিয়া ফারহানা শান্তা

গরমের বড়দিন, তাই রোজা রেখে ইফতারে প্রচুর পানি খেতে হবে নাহলে ডিহাইড্রেশন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।সেই সঙ্গে খেতে হবে প্রচুর শরবত। লেবুর শরবতের পাশাপাশি ফলের ককটেল বা ফলের জুস এসময় বেশী খেতে হবে।তাই আপনাদের জন্য নাজিয়া ফারহানা শান্তা ক’টি ঠান্ডা ককটেল ও জুসের রেসেপি দিয়েছেন। এই রোজায় আপনিও তৈরি করতে পারেন।

ফল-আইসক্রিমের ককটেল

ফল-আইসক্রিমের ককটেল

উপকরণ :
তরমুজ কিউব করে কাটা এককাপ, আনারস কিউব করে কাটা এককাপ, কমলা এককাপ, আপেল কিউব করে কাটা এক কাপ, কলা কিউব করে কাটা এককাপ, চিনি এককাপ, এলাচগুঁড়া সামান্য, আইসক্রিম তিন টেবিল চামচ, আইস কিউব এককাপ।

প্রণালি :

প্রথমে একটি ব্লেন্ডারে তরমুজ, আনারস, কমলা, আপেল, কলা ও চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন।এবার এতে আইসক্রিম, এলাচগুঁড়া ‍ও আইস কিউব দিয়ে আবারও ব্লেন্ড করুন। এরপর একটি গ্লাসে ঢেলে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশ করুন দারুণ সুস্বাদু ফল-আইসক্রিমের ককটেল।

ফ্রোজেন লেমনেড

ফ্রোজেন লেমনেড

উপকরন : সেভেনআপ – ২৫০মিলি লিটার, সুগার ওয়াটার – ২৫০ – ৩০০মিলি লিটার,শরবতি / এলাচি লেবুরস – ১টি্র (ঘ্রানযুক্তলেবু ), গ্রিন ফুডকালার – ১-২ফোঁটা (ঐচ্ছিক )।

ফ্রোজেন লেমনেড  সুগার ওয়াটার তৈরির প্রনালি : পানি – ২৫০মিলি লিটার, চিনি – ৩টেবিল চামচ বা স্বাদ অনুযায়ী – পানি চিনি একসঙ্গে মিক্স করে জ্বাল দিন। – গলে গেলে ৪-৫ মিনিট পর চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন।

প্রনালিঃ

সব একসঙ্গে খুব ভাল করে মিক্স করে নিন।ডিপফ্রিজে ৫-৬ ঘন্টা রাখুন।হালকা নরম বরফ হলে বের করে গ্লাসে সার্ভ করুন।  বরফ বেশি শক্ত হয়ে গেলে ভেঙ্গে বা ব্লেন্ড করে নিতে হবে। চাইলে উপরে সামান্য লেমনজেস্ট বা মিন্ট দিয়ে পরিবেশন করুন।

মিক্সড আপেল জুস

মিক্সড আপেল জুস 

যা লাগবে: আপেল ২০০গ্রাম, লেবু ৫ গ্রাম, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, গুড় ৫ গ্রাম, পানি ১০০গ্রাম, বরফ কুচি পরিমাণ মতো।

যেভাবে তৈরি করবেন * আপেলটুকরোকরেনিন। * লেবুর রস তৈরি করুন। * সব উপকরণ ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

আম চিড়ার শরবত

আম চিড়ার শরবত

উপকরণ: আম বড় ১টি, চিড়া১/২কাপ (ধুয়ে ভাল করে এক চিমটি লবণ মাখায়ে পানিতে ভিজায় রাখুন।, চিনি ৪ ৫ টেবিলচামচ ( যতটুকু নিতে চান )  ২ ফোটা ভ্যানিলা এসেন্স, পানি ৪ গ্লাস।

প্রণালি:

প্রথমে সব উপকরণ তৈরি করে নিন।আম ছিলে টুকরা করে নিন।এবার সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভাল করে ব্লেন্ড করে নিন। মিষ্টি চেক করে দেখুন। পানি একসঙ্গে ব্লেন্ডারে না আসলে অসুবিধা নেই।পরে পানি দিয়ে জগে করে মিশাতে পারবেন। নরমাল ফ্রিজে রেখে দিন।ইফতারের সময় হলে গ্লাসে ঢেলে পরিবেশন করুন মজাদার ঠান্ডাঠান্ডা আম চিড়ার শরবত।

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com