ঝড় থামলো শেষে?

  •  
  •  
  •  
  •  
  • 0
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

যাকে নিয়ে শাকিব খান আর অপু বিশ্বাসের গোপন সংসারে ঝোড়ো হাওয়া উড়িয়ে দিয়েছে সব গোপনীয়তার পর্দা সেই নায়িকা শবনম বুবলিও আজ মাঠে নেমেছিলেন ফেসবুকে বিবৃতি দিয়ে। কিন্তু বুবলির বিবৃতি আবারও ঝড় তোলার আগেই ঢাকাই সিনেমার হিরো নাম্বার ওয়ান শাকিব খান একটি দৈনিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলে দিলেন, ‘গতকাল মেজাজ খুব খারাপ ছিল বলে অনেক কথাই হয়তো বলেছি। কিন্তু এখন উপলব্ধি করছি, যা–ই ঘটে থাকুক না কেন, এটা আমার সংসার, আমার স্ত্রী, আমার সন্তান। আমাকে ওদের সঙ্গেই থাকতে হবে।’ আর এতে গতকাল থেকে চিত্রনায়ক শাকিব খান, চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস আর তাদের সন্তান নিয়ে গণমাধ্যমে যে ঝড় উঠেছিলো তার আপাতত অবসান ঘটলো বলেই মনে করছেন সংশ্লিষ্ট মহলগুলো।

শাকিব খান ওই পত্রিকার সঙ্গে টেলিফোনে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘গতকাল হঠাৎ করেই আমার সন্তানকে টেলিভিশনে তাঁর মায়ের সঙ্গে এভাবে দেখে মাথা ঠিক রাখতে পারিনি। তাঁর প্রতি অভিমান হয়েছিল। তা ছাড়া সন্তানসহ ওকে টেলিভিশনে দেখার পর থেকে আমার কাছে অনেক ফোন আসা শুরু করে। নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি।’শাকিব খান বলেন, ‘অপু আমার সন্তানের মা, আমরা একসঙ্গে ছিলাম। খুব ভালোই ছিলাম। তিন দিন আগেও তো একসঙ্গে ঘোরাঘুরি করেছি। আমরা তো ভালোই ছিলাম। ভবিষ্যতেও আমি আমার সন্তানের মাকে নিয়ে ভালোভাবেই থাকব।’

শবনম বুবলির ফেসবুকের বিবৃতিটির কিছু অংশ এখানে তুলে দেয়া হলো পরিমার্জনা করে।

ব্যাপারটি কি ইমোশনাল না প্রফেশনসাল?
কোনটা ?
হুমম একটু ভেবে বললে ভালো (যদি সময় হয় কারন সবাই এখন ব্যস্ত থাকেন )

জানি , আপনারা এখন অনেকেই অনেক কিছু ভাবছেন । আমাদের দেশে মাঝেমাঝে কিছু কিছু ইস্যু সবার সামনে এসে দাঁড়ায় যখন অধিকাংশ ( সবাই না ) মানুষ হুমড়ি খেয়ে এক তরফা জাজমেন্ট করতে শুরু করে । আর এদের মধ্যে যারা একটু ভিন্নভাবে ভাবতে চায় তাদের যে কত কথা শুনতে হয় তা না হয় নাই বললাম । একদম রিসেন্ট ইস্যু নিয়ে নিয়ে যদি কথা হয় তাহলে আমার মন্তব্য না করাটাই শ্রেয় । কারন এটি সম্পুর্ণ যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার , আর আমি স্বভাবতই নিজের মত থাকতে পছন্দ করি কিন্ত যখন সেখানে আমার কিছু ইস্যু মানুষ নিয়ে আসে তখন তো সেখানে স্বাভাবিকভাবে অনেকেই জানতে চাইছে এবং অনেক ফোন কল পাচ্ছি এসব নিয়ে যে আমি কিভাবে দেখছি এসব !

বাই দা ওয়ে, আমি প্রথমেই একটা জিনিস জানতে চাই গতকাল কেন অপু বিশ্বাস এতো দিনের আড়াল ভেঙে সরাসরি চ্যানেলে গিয়ে এসব কথা বললেন ?
কই এতোদিন তো যাননি , কারো সামনে আসতে চাননি.. কেনো ?
কই সাংবাদিক ভাইরা তো এতো চেষ্টা করেও সামনে আনতে পারলেন না, মুখ খোলাতে পারলেন না, বরং আপনারা নাকি যখন জিজ্ঞেস করেছেন তখন নাকি নানান কথা বলেছে । তার ভাষ্যমতে, ২০০৮ সাল থেকে সে বিবাহিত তাহলে এতোদিন কেনো মর্যাদা চায়নি? শাকিব নাহয় লুকিয়েছে , সে লুকায়নি ? কেনো ক্যারিয়ারের জন্য ?
একজন ওয়াইফের কাছে ক্যারিয়ার এতোই বড়?
ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবা ঠিক আছে বাট নিজের মর্যাদা আদায় এর আগে কি ক্যারিয়ার ?
অপু বিশ্বাস আরো বলেছেন তার সঙ্গে শাকিবের গত এক বছরের মত কথা হয়না, এটা কি কোন সম্পর্কের জন্য স্বাভাবিক ? তখনও স্বীকৃতি চাইতে সবার সামনে আসলো না কেনো ?
সে আরো বললো তার ডেলিভারি হয়েছে গত বছর সেপ্টেম্বরে তাহলে তখন আসলো না স্বীকৃতির জন্য । কেনো ?
শাকিব নাহয় লুকিয়েছে, সে লুকায়নি ?
একজন মায়ের কাছে কি সন্তানের থেকে ক্যারিয়ার বড় ?
কই গত পরশুদিন পর্যন্ত তো সে বাচ্চাটির স্বীকৃতি চাইলো না !
যাই হোক , যে কেউ ভিউয়ার হিসেবে যে কোন মন্তব্য করতে পারেন সহজে কিন্তু একমাত্র তাঁরাই ভালো বলতে পারেন সবকিছু যখন যারা যেসব সিচুয়েশনের এর মধ্য দিয়ে যান । আর আমাকে নিয়ে কেউ যখন সারাক্ষন কথা বলে তখন আই হ্যাভ রাইট টু ক্লিয়ার সামথিং অ্যান্ড আই জাস্ট ট্রাইড টু ডু দ্যাট।
আর হ্যাঁ সহশিল্পীদের সবার সঙ্গে সবার ভালো আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকে যেটা আমার সঙ্গে শাকিবের আছে এবং থাকবে ।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ প্রথম আলো, ফেসবুক

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com