জলযাত্রায় মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র, নাটক ও গান প্রদর্শনী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশের টেলিভিশন-চলচ্চিত্র দর্শক, বেতার শ্রোতা এবং পত্রিকা পাঠকদের সংগঠন দর্শক-শ্রোতা-পাঠক ফাউন্ডেশন’ জলযাত্রায় মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র, নাটক ও গান উৎসব ২০১৭’ শিরোনামে একটি অভিনব আয়োজনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিতব্য এই উৎসবে দেশের নৌযানগুলোতে দর্শকদের জন্য কালোত্তীর্ণ চলচ্চিত্র এবং নন্দিত টেলিভিশন নাটক ও গান প্রদর্শনের পরিকল্পনা রয়েছে। পুরো পরিকল্পনায় থাকছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল (যা.প) ও ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি: (চ্যানেল আই)।

এ উপলক্ষে ১৩ এপ্রিল তেজগাঁওয়ের চ্যানেল আই কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি, চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার সভাপতি মাহবুব উদ্দিন আহাম্মদ বীর বিক্রম ও দর্শক শ্রোতা পাঠক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক জিয়াউল হাসান কিসলু। এ সময় নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান, এমপি উৎসবের উদ্ধোধন ঘোষণা করেন। পরে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. প্রযোজিত মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র, নাটক, গানের ডিভিডি নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি-এর হাতে তুলে দেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দর্শক-শ্রোতা-পাঠক ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল আলম সাচ্চু, অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী-সহ অনেকে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমান সময়ে দেশীয় চলচ্চিত্র ও নাটক একটি সন্ধিকাল অতিক্রম করছে। নানাবিধ কারণে প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, অর্থলগ্নি কমছে, ফলে দর্শকরা বঞ্চিত হচ্ছে। পক্ষান্তরে নৌযানগুলোর আধুনিকায়নের ফলে নাটক/চলচ্চিত্র প্রদর্শনের নতুন একটি দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি, নৌযানগুলোতে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মানসম্মত চলচ্চিত্র, নাটক বা গান প্রদর্শন করা হচ্ছেনা। সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় নৌযানগুলোতে বিদ্যমান অবকাঠামো বিকল্প সিনেমা হল হিসেবে ব্যবহার করে সাহিত্য নির্ভর ও জীবন ঘনিষ্ঠ চলচ্চিত্র/নাকট/গান প্রদর্শিত হলে দর্শক/যাত্রীদের বিনোদনের পাশাপাশি সুস্থধারার সংস্কৃতি চর্চায় নতুন মাত্রা যোগ হবে। নৌযানগুলোতে মানসম্মত চলচ্চিত্র-নাটক ও গান মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন এবং দেশীয় সংস্কৃতির বিকাশে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

বিনোদন প্রতিবেদক

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com