ছুটিতে চলুন ‘ছুটি’ তে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

dusai

ঘন নীল আকাশ,মৃদু-মন্দ শীতল হাওয়া।বনভোজন এখন জমবে ভালো।সুতরাং ছোট কোন ছুটি মিললে ঢাকার আশপাশে এক দিনের জন্য বেড়িয়ে এলে মন্দ হয় না।ঢাকার আশেপাশে এখন গড়ে উঠেছে বেশ সুন্দর সুন্দর রিসোর্ট।তেমনি গাজীপুরের সুকুন্দি গ্রামে আছে ‘ছুটি’ নামের একটা ইকো রিসোর্ট। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ছুটি’ কবিতার নাম অনুসারে নির্ভেজাল ছুটির আমেজ দেওয়ার জন্যই এই নামকরণ।

chhuti-8

ঢাকা থেকে দেড় থেকে দুঘণ্টা পথ।রিসোর্টটি ৫০ বিঘা আয়তন নিয়ে। রিসোর্টের তিন পাশে রয়েছে সুন্দর লেক।আর চারদিকে ভাওয়াল বনের সবুজ দ্বীপ। আছে নৌভ্রমণের সুব্যবস্থা, গাড়ি রাখার সুব্যবস্থা, বিরল প্রজাতির সংরক্ষিত বৃক্ষের বনের মাঝে রয়েছে তাঁবুর ব্যবস্থা।রয়েছে বিভিন্ন ধরনের থাকার ঘর।যে কোন ধরণের আমেজ আপনি চাইলেই নিতে পারেন।আছে ছনের ঘর, রেগুলার কটেজ, বার্ড হাউস।আর সারাদিনের জন্য আছে নানা আয়োজন।

chhuti-52

মাছ ধরার সুব্যবস্থা, হার্বাল গার্ডেন, বিষমুক্ত ফসল, দেশীয় ফল, সবজি, ফুলের বাগান, বিশাল দুটি খেলার মাঠ, আধুনিক রেস্টুরেন্ট, দুটি পিকনিক স্পট, গ্রামীণ পিঠা ঘর, ছোট বাচ্চাদের জন্য কিডস জোনসহ সারা দিন পাখির কলরব। সন্ধ্যায় শুনশান। একটু রাত হলেই শিয়ালের হাঁক, বিরল প্রজাতির বাদুড়, জোনাকি পোকার মিছিল ও আতশবাজি, ঝিঁঝি পোকার হৈচৈ। আর ভরা পূর্ণিমা হলে তো কথাই নেই।তবে রিসোর্টের নিয়ম অনুসারে চাঁদনী রাতে বিদ্যুতের আলো জ্বালানো হয় না।সে এক অন্য জগৎ। ভরা পূর্ণিমা এবং রিমঝিম বর্ষা উপভোগ করার জন্য এই ছুটির কথা অনায়াসেই ভাবতে পারেন।

chuti-3

খাবার-দাবারেও এখানে আছে দেশীয় ছোঁয়া। সকালে পরিবেশন করা হয় চালের নরম রুটি অথবা চিতই পিঠা, সঙ্গে দেশী মুরগির তরকারি, সবজি ও ডাল ভুনা। গরম গরম চা অথবা কফি।
রিসোর্টে চাষ করা সবজি দিয়েই এখানে চলে ভাজি-ভর্তাসহ হরেক রকমের আয়োজন। সন্ধ্যার আলো-আঁধারিতে পুকুরপাড়ে বসে লোকজ গানের আসর। বাশের বাঁশিতে ভাওয়াইয়ার সুর।সঙ্গে চলে লাল চালের মুড়ি। সবজির পাকুড়া। সঙ্গে গরম গরম চা অথবা কফি। আর এত সব মজার পর যদি চলে আসতে ইচ্ছে না হয তাহলে থাকার ব্যবস্থাও আছে। থাকতে পারেন পরিপূর্ণ গ্রামীণ আমেজের অথবা ইট কাঠ বালুর কটেজ।

chhuti-bg-main
নাগরিক জীবন থেকে একটু নির্মল আনন্দ নিতে ঘুরে আসতে পারেন ‘ছুটি রিসোর্ট’এ। তবে অগ্রিম বুকিং করতে হবে। ডে লং ছুটি উপভোগ করার জন্য জনপ্রতি ২ হাজার টাকা।আর রাতে থাকার জন্য আমেজ অনুযায়ী ভাড়া ভিন্ন।

বুকিং ফোন নম্বর : +৮৮ ০১৭৭৭১১৪৪৮৮/৯৯
মেইল: info@chutibd.com
ওয়েবসাইট: www.chutibd.com
www.facebook.com/chutiresort

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com