গরমে অন্যরকম চার পদ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অসিত কর্মকার সুজন

গরমে খাওয়া-দাওয়াতে তেমন আরাম পাওয়া যায় না।তাই মাছ, মাংস, ডিম যা-ই খাইনা কেন যদি একটু ভিন্নভাবে পরিবেশন করা যায় তাহলে মুখোরোচক হয়।বাজারে কাঁচা আমও এখন পাওয়া যাচ্ছে তাই শেষপাতে আমের চাটনি হলে তো সোনায় সোহাগা।আপনাদের জন্য তেমনি কিছু রেসেপি এবার দিয়েছেন রন্ধন শিল্পী অসিত কর্মকার সুজন।

দই রুই

দই রুই

উপকরণ:

রুই মাছের টুকরা ৬টি, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ২ টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদ পরিমাণমতো, আদা ও জিরাবাটা ২ চা-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, ধনেপাতা , টক দই ২ টেবিল চামচ।

প্রণালী: 
মাছে দই , লবণ ,হলুদ ও মরিচ গুঁরা দিয়ে মাখিয়ে অল্প সময় রেখে দিন। কড়াইতে তেল দিয়ে মাছ ভেজে নিন । এবার তেলে বাকি সব মসলাগুলো কষিয়ে নিন। এরপর দই দিন।কিছুক্ষণ কষিয়ে এবার মাছ দিয়ে দিন।তারপর সামান্য পানি দিয়ে দিন।ফুটে উঠলে চিনি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে উপর থেকে দই ও ধনেপাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

ডিমের রোষ্ট

ডিমের রোষ্ট

উপকরণ :

ডিম ৬-৭ টি, পেঁয়াজ- দেড় কাপ (কুঁচি করা্‌ ) , পেঁয়াজ বাটা -১ চা চামচ টক দই – ৩ চা চামচ আদা বাটা-১ চা চামচ , রসুন বাটা-১ চা চামচ জিরার গুড়া- ১ চা চামচ , ধনিয়া গুড়া -১ চা চামচ , জয়ত্রী গুড়া -১/২ চা চামচ এর কম এলাচ – ৪-৫ টি ,দারচিনি -৩ টি , কাঁচা মরিচ -৬ টি , চিনি -১ চা চামচ ,লবন- ১ চা চামচ বা আপনার স্বাদ অনুযায়ী , তেল -দেড় কাপ ।

প্রণালী:
প্রথমে ডিম স্বেদ্ধ করে নিতে হবে ।তারপর পাত্রে ১ কাপ তেল গরম করে ডিম হাল্কা করে ভেজে তুলে রাখুন।এবার একটি পাত্রে ১/২ কাপ তেল গরম করে তাতে কাটা পেয়াজ, দারচিনি, এলাচ দিয়ে বাদামি না হওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন এরপর বাকি বাটা মশলা দিয়ে কষিয়ে নিন। তারপর ভাজা ডিম দিয়ে নাড়তে থাকুন যতক্ষণ পর্যন্ত তেল ভেসে না উঠে। এক কাপ পানি দিয়ে মাঝারি আঁচে রান্না করুন। ৫ মিনিট পর চিনি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে রান্না করতে থাকুন ঝোল ঘন হওয়া পর্যন্ত । এবার নামিয়ে পরিবেশন করুন।

পালং মুরগী

পালং মুরগী 

উপকরণঃ
মুরগী ৫০০ গ্রাম , পালং শাক, টক দই আধা কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, মরিচের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, এলাচি ৩টি, দারুচিনি ৪-৫টি, তেজপাতা ৩টি, ধনেগুঁড়া ১ চা-চামচ, পেঁয়াজের কুচি আধা কাপ, তেল আধা কাপ, লবণ পরিমাণমতো, জিরার গুঁড়া ১ চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি।

প্রণালীঃ
পানি গরম করে তাতে পালং শাক ও কাঁচা মরিচ দিয়ে ৫ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে চুলা থেকে নামিয়ে । এরপর পালং শাকের মিশ্রণটি ব্লেন্ডকরে নিতে হবে এমন পরিমাণে যে এতেই মুরগীর গ্রেভি হয়। এরপর সব মশলা দিয়ে মুরগীর মাংস মেখে রাখতে হবে ১৫ মিনিট । এবার কড়াইতে তেল দিয়ে মুরগির কষাতে দিতে হবে ।তারপর অল্প অল্প করে পানি দিয়ে ভালো করে রান্না করতে হবে । নামানোর সময় পালং শাকের মিশ্রণটি দিয়ে ভালো করে নেড়ে পাঁচ মিনিট রেখে নামিয়ে নিতে হবে ।এবার পরিবেশন করা যাবে।।

কাঁচা আমের চাটনি

কাঁচা আমের চাটনি

উপকরনঃ 
কাঁচা আম ২৫০ গ্রাম , চিনি পরিমান মত , মিষ্টি আলু ১০০ গ্রাম , অল্প লবণ ও হলুদ গুঁড়া পরিমাণ মত , সয়াবিন তেল ১ চা চামচ ,সরষে অল্প পরিমান মত ।

প্রণালী:
প্রথমে কাঁচা আম ও মিষ্টি আলুর খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে পরিমান মত চিনি ও হলুদ ,লবণ দিয়ে সিদ্ধ করতে হবে। সেদ্ধ করা হলে নামিয়ে ঠান্ডা করে ভালো করে চটকে নিতে হবে । এরপর কড়াইতে তেল দিয়ে সরষে ফোঁড়ন দিয়ে মিশ্রনটি ঢেলে দিয়ে নাড়তে হবে । এবার নামিয়ে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন । হলুদ গুড়া শুধু রঙ আনার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com