কাল কী হবে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কী ঘটবে আগামীকাল? দেশ জুড়ে এখন একটাই আলোচনা। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে কাল মহারণে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ভারত। ক্রিকেট ভক্তরা ভাবনার খাতা খুলে বসে গেছেন বললে ভুল বলা হবে। বলা যায় গোটা দেশের মানুষের সামনে এখন একটাই চিন্তা, একটাই প্রশ্ন, টাইগার বাহিনী কি পারবে এই যুদ্ধ জয় করে খুলে দিতে স্বপ্নের দরজা? তাদের সবার একটাই প্রার্থনা বাংলাদেশের এই সাহসী ক্রিকেট যোদ্ধারা ভারতকে উড়িয়ে দিয়ে পৌঁছে যাক ফাইনালে।

যানজটের নগরী ঢাকা। কিন্তু বাজি ধরে একটা কথা বলা যায় সপ্তাহ শেষের বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই প্রায় শূণ্য হয়ে যাবে জনবহুল এই শহরের পথঘাট।সময়ের আগেই শূণ্য হবে অফিস, হয়তো লেনদেনের চাপ কমবে ব্যাংকের কাউন্টারে, ঈদের কেনাকাটায় বিপণী বিতান মুখী মানুষের স্রোতও স্তিমিত হবে বেশ অনেকটাই। ক্রিকেট পাগল মানুষ বসে যাবে টেলিভিশনের সামনে। যে পথ পার হতে কারো সাধারণ সময়ে এ ঘন্টারও বেশী সময় লাগে সেখানে হয়তো সময় ব্যয় হবে পনেরো মিনিট।

বাংলাদেশ সেমিফাইনালে পৌঁছানোর পর থেকেই যেন ক্রিকেট জ্বরে ভুগছে গোটা দেশ। আলোচনার টেবিলে উঠছে ঝড়। বাংলাদেশ আর ভারতের খেলোয়াড়দের খেলা নিয়ে চলছে তুলনামূলক আলোচনা, বিশ্লেষণ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই উত্তাপ টের পাওয়া যাচ্ছে আরো স্পষ্ট। সেখানে আবেগের ভেলায় ভেসে ভক্তরা বাংলাদেশ দলকে পৌঁছে দিচ্ছে ফাইনালে। ভবিষ্যতবাণী করছে বাংলাদেশকে শিরোপা জয়ী দেশ হিসেবে।আবার কেউ আশঙ্কার হিসেব কষছেন বৃষ্টির জন্য খেলা না-হলে বিপদে পড়বে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের দলপতি মাশরাফি ইতিমধ্যে গণমাধ্যমে জানিয়ে দিয়েছেন, শঙ্কা আর টেনশন মুক্ত হয়ে সেরা খেলাটাই তারা খেলতে চান।মাশরাফি দেশবাসীকে অনুরোধ জানিয়েছেন, এখনই তাদের চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে কেউ যেন চিহ্নিত না করেন।

বাংলাদেশের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে দলের ক্যাপ্টেনের চাইতে এক ধাপ এগিয়ে এজবাস্টনে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলাদেশের জন্য এটা আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই। দলের খেলোয়াড়দের একটিই বার্তা দিয়েছেন কোচ, ‘এটা স্রেফ বড় একটা সুযোগ, এটা বড় ম্যাচ নয় আমাদের জন্য বড় একটা সুযোগ। যে কোন ক্রিকেটারই চাইবে সুযোগটা কাজে লাগাতে।’

হাথুরুসিংহে এই ম্যাচে ভারতকেই ফেবারিট মেনে নিয়েই বলেছেন, ‘ভারত খুব ভালো দল। অনেকেই ভাবতে পারেনি আমরা সেমিফাইনালে উঠতে পারব। আমরা যদি আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারি, যেকোন দলকেই হারাতে পারি।’

বিদেশী গণমাধ্যমে ভারত-বাংলাদেশের এই ম্যাচ নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। ক্রিকেট বিশ্লেষক থেকে শুরু করে সাবেক ক্রিকেটাররা ছুঁড়ে দিচ্ছেন নান মন্তব্য, করছেন বিশ্লেষণ।কিন্তু আমাদের তো বুক ভরা আবেগ আর স্বপ্ন। স্বপ্ন পাহাড় চুড়ায় দাঁড়ানোর, অবেগ কঠিন লড়াইয়ে মাথা উঁচু করে লড়ার। হিসেবের খাতা পড়ে থাক। এই সংকটে আকীর্ণ জীবনে বাংলাদেশের মানুষ স্বপ্ন দেখুক। তাদের স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হোক।

খেলার জগৎ ডেস্ক

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com