আর মাঠে গড়াবে না চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আসর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীমঃ আর মাঠে গড়াবে না চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আসর।ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের মধ্য দিয়ে পরিসমাপ্তি হয়েছে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির একটা সফল আসরের। এখন আশঙ্কা  দেখা দিয়েছে এই বৈশ্বিক আসরের ভবিষ্যৎ নিয়ে। আর মাঠে গড়াতে নাও পারে আইসিসির এই তৃতীয় বৃহত্তম মহাযজ্ঞ। ওয়ান ডে ফরমেটের টুর্নামেন্টের মান বৃদ্ধির ব্যাপারে আশাবাদী আইসিসি। যে কারনে দুটো পঞ্চাশ ওভারের টুর্নামেন্ট আর চালিয়ে নেয়া প্রয়োজনীয়তা দেখছেন না আইসিসি । এই প্রসঙ্গে রিচার্ডসনের অভিমত, ’১০ দলের বিশ্বকাপে ম্যাচের প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও সর্বোপরি টুর্নামেন্টের মান বৃদ্ধিতে আমরা আশাবাদী। পঞ্চাশ ওভারের দু’টো টুর্নামেন্ট অব্যাহত রেখে এগিয়ে নেয়াটা হয়তো প্রয়োজন হবে না।’

ডেভিড রিচার্ডসন বলেন, ‘সূচি অনুয়ায়ী ২০২১ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আসর ভারতে হওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও টুর্নামেন্ট আয়োজনে পরিবর্তন আনতে পারে আইসিসি। সেক্ষেত্রে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি তুলে দিয়ে চার বছরে দুটো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পথে হাঁটা যেতে পারে।’ বিচার্ডসনের ভাষায়, ‘পঞ্চাশ ওভারের একই ধরনের দুটি টুর্নামেন্ট করার প্রয়োজন নেই। ১৬ কিংবা ২০ দলের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও দশ দলে পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপ করলে টুর্নামেন্টের মান আরও উন্নতি করব।’

২০২০ সালের টি২০ বিশ্বকাপের আয়োজক অস্ট্রেলিয়া। আইসিসির প্রধান নির্বাহী রিচার্ডসনের মতে, চার বছরের মধ্যে দু’টো টি-টোয়েন্টি বৈশ্বিক আসর প্রচুর দর্শক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সেখানে একটা বাড়তি আসরের কোনো প্রয়োজনীয়তা দেখছেন না তিনি।রিচার্ডসনের ভাষ্যমতে, ‘আমরা গ্লোবাল ইভেন্টে একটির সঙ্গে আরেকটা আলাদা করতে চাই। যাতে করে স্বতন্ত্র হতে পারে এবং প্রতিটা আসরে সর্বোচ্চ আগ্রহ সৃষ্টি করতে পারে।

আইসিসির প্রধান নির্বাহী মনে করেন টি২০ বিশ্ব আসর দলগুলোকে অনেক বেশি সুবিধা দিচ্ছে। এদিকেই তারা আপাতত দৃষ্টি রাখবেন। আগামী টি২০ বিশ্বকাপের আসর ১৬ দল অথবা ২০ টি দল নিয়েও হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।এই প্রসঙ্গে রিচার্ডসন জানান, ‘মূল ব্যাপার হলো, ওয়ার্ল্ড টি-২০ দর্শকদের প্রচুর আকৃষ্ট করছে, টেলিভিশন কোম্পানিগুলোর জন্য উল্লেখযোগ্য রাজস্ব উৎপন্ন করছে।

ছবিঃ গুগল

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com