আট উইকেট হাতে প্রোটিয়াদের

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
আহসান শামীমঃ ৩২০ রানে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ। ১৭৬ রানের সাথে দুই উইকেট হারিয়ে প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ৫৪ রান। ২৩০ রানে এগিয়ে ২ উইকেট হারিয়ে চতুর্থ দিনে রোববার প্রোটিয়ারা দ্বিতীয় ইনিংসের আট উইকেট হাতে নিয়ে খেলা শুরু করবে।
পচেফস্ট্রম টেস্টে টস জিতে ফিল্ডিং নেয়ার এক সিদ্ধান্তই বোধ হয় মনোবল যা ছিল তার পুরোটা ভেঙে গিয়েছে বাংলাদেশের।টস জিলেই ব্যাটিং। এমন ব্যপারটা হরহামেশাই হয় ক্রিকেটে। উইলিয়াম গিলবার্ট গ্রেসের বিখ্যাত একটা উক্তিও বেশ প্রচলিত। ‘যদি তুমি টস জিতো, ব্যাটিং নাও। আর কোনো সংশয় জাগে, তাহলে কিছুক্ষণ ভাবো, তারপর ব্যাটিং নাও। যদি অনেক বেশী সন্ধিহান হও, তাহলে সতীর্থদের সঙ্গে পরামর্শ কর এবং ব্যাটিং নাও।’টসে জিতে ঘটলো উল্টো ঘটনা, আফ্রিকার উইকেট বাউন্সি হয় এই ভেবেই বাংলাদেশের চিন্তা ফিল্ডিং নিতে হবে।সেই কারনে টস জেতার পরই বাংলাদেশ টেষ্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকের ব্যাটিং না নেওয়ার সিদ্ধান্তে তুমুল সমালোচনার ঝড় উঠে ।ব্যাট হাতে পেয়ে ১৪৬ ওভার খেলে মাত্র তিন উইকেটে ৪৯৬ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষনা করে দক্ষিন আফ্রিকা।
এসব কিছুই এখন অতীত ।প্রোটিয়া অধিনায়ক ডুপ্লেসির বুদ্ধির জালেই আটকা পরে তামিম তাঁর ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মত খেললেন পাঁচ নম্বরে। হঠাৎ করেই টেষ্টের প্রথম ইনিংস প্রোটিয়ারা ঘোষনা করবে , এমন ধারনা কারও ছিল না । যদিও প্রোটিয়া অধিনায়ক ডুপ্লেসি ,তামিমকে অনেক্ষন মাঠের বাইরে দেখে তাঁকে ওপেনিং করতে না দেওয়ার পরিকল্পনা থেকে স্কোর বোর্ডের পর্যাপ্ত রান রেখেই ইনিংসের ঘোষনা করেন। ৪৯৬ রানের জবাবে ব্যাট হাতে প্রথম ইনিংসে দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশ এর আগে টেস্টের দ্বিতীয় দিন ৩ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান নিয়ে খেলা শেষ করেছিলো সফরকারী বাংলাদেশ।প্রোটিয়াদের থেকে ৩৬৯ রানে পিছিয়ে থেকে আজ শনিবার খেলতে নামে টাইগাররা।ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা দেখে শুনে করলেও দিনের তৃতীয় ওভারে পেসার কাগিসো রাবাদার বলে লেগ বিফরের ফাঁদে পড়েন ওপেনার তামিম।৪৪ রান করে তাড়াহুড়া করে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক মুশফিক।ফলোয়ানের লজ্জায় পরতে যাওয়া বাংলাদেশের সম্মান রক্ষা করেন , হেড কোচ হাতুড়াসিংহের চোঁখে টেষ্টে অযোগ্য দুই খেলোয়াড় মুমিনুল ৭৭ আর রিয়াদ ৬৬ রান।
সাব্বির ৩০ রানে সাজঘরে ফেরার পর তাসকিন ১ রানে আউট হন।এরপর ৮৬ ওভার শেষে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ৩০৮ রান করে চা বিরতিতে যায় টাইগাররা। চা বিরতির পর কাগিসো রাবাদার বলে ডিন এলগারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ব্যক্তিগত ৮ রানে সাজঘরে ফিরেছেন মিরাজ। মহারাজের করা ৯০ তম ওভারের প্রথম বলে ২ রান করে শফিউল ইসলাম হাসিম আমলার হাতে ক্যাচ দিলে ৩২০ রানে থামে টাইগারদের ইনিংস।
১৭৬ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। শফিউল ইসলামের করা সপ্তম ওভারের দ্বিতীয় বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে আউট হন প্রোটিয়া ওপেনার এলগার। ১১ তম ওভারের শেষ বলে প্রোটিয়া ওপেনার এইডেন মার্করামকে, উইকেটরক্ষক লিটন দাসের ক্যাচ বানিয়ে আউট করেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। অভিষিক্ত মার্করামের ব্যাট থেকে এসেছে ১৫ রান।
ছবিঃ ইএসপিএন

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com