আজ লড়াই

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীমঃ কিম্বার্লির ডায়মন্ড ওভালে আগামীকাল রোববার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং বাংলাদেশ।জয় পাওয়ার জন্য বাংলাদেশ দলের সবচাইতে বড় বাঁধা আফ্রিকার কন্ডিশন। দলের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে একমত স্পিন অলরাউন্ডার নাসির হোসেনও।অবশ্য দক্ষিন আফ্রিকাও খাঁটো করে দেখছে না টাইগাদের বিপক্ষে ওয়ান ডে সিরিজকে। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক পেস বোলার অ্যালান ডোনাল্ড বাংলাদেশ ক্রিকেট সম্পর্কে যথেষ্ট খোঁজ খবর রাখেন। তিনিও ওয়ান ডে সিরিজে তাঁর দেশকে টাইগারদের বিপক্ষে সতর্কতার সাথে ওয়ান ডে সিরিজ মোকাবিলা করার পরামর্শ দেন।

পুরোপুরি সুস্থ না হয়ে ওঠায় তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামতে পারে বাংলাদেশ। যদিও তার খেলার সম্ভাবনা এখনই উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। সুতরাং পুরোপুরি সুস্থ না হয়ে ওঠায় তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামতে পারে বাংলাদেশ। তামিম না খেললে সেক্ষেত্রে তাঁর পরিবর্তে সৌম্য সরকারের সাথে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে লিটন কুমার দাসকে। দলের তিন নম্বর পজিশনের দায়িত্বে থাকবেন ইমরুল কায়েস অথবা মমিনুল হক।

সম্প্রতি সময়ে বাংলাদেশ দলের পারফর্মেন্স নজর কেড়েছে সাবেক এই প্রোটিয়া পেসারের। বাংলাদেশ দলে অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটার আছে বলেই তারা দ্রুত উন্নতি করছে বলে মনে করেন। তিনি আরও বলেন, “বাংলাদেশের উন্নতির খবর রাখি। এই তো কিছুদিন আগেই চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেললো বাংলাদেশ। ভালো দল, অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটার রয়েছে।”

টেস্ট সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ধবলধোলাই হয়েছে বাংলাদেশ।তারপরও ওয়ানডে সিরিজে টাইগারদের মোটেও হালকা ভাবে নিচ্ছে না দক্ষিণ আফ্রিকা।মাথায় রেখেছে চ্যাম্পিয়ন ট্রফির সেই ম্যাচটা ।চ্যাম্পিয়ন ট্রফিতে সেফিফাইনালে খেলছিল বাংলাদেশ। সেবার টাইগারদের গর্জন শুনেছিল পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। তাহিরের মনেও গেঁথে আছে টাইগারদের সেই পারফর্মেন্স। তবে নিজেদের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী তিনি। গনমাধ্যমের কাছে জানালেন, “ওয়ানডেতে বাংলাদেশ শক্ত প্রতিপক্ষ। তারা সেটা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেই প্রমাণ করেছে। তারা সেখানে সেমিফাইনাল খেলেছে। তাদের সহজ প্রতিপক্ষ মনে করার কোনও কারণই নেই। আমার মনে হয় শেষ ২-৩ বছরে আমরা যেভাবে খেলছি, তাতে আমরা যে কাউকে হারাতে পারি। ওদের হারাতে হলে মনোযোগ দিয়েই খেলতে হবে।”

টেস্ট সিরিজে বাজে ফলাফলের পরে ওয়ানডে সিরিজে ঘুরে দাঁড়াতে চাচ্ছে মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশ।বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান মনে করেন, টেস্ট সিরিজের ফলাফল ওয়ানডে সিরিজে প্রভাব ফেলবে না। গনমাধ্যমে তিনি জানান, “আমার মনে হয় না টেস্ট সিরিজে হারের প্রভাব ওয়ানডেতে পরবে।এটা সম্পূর্ণ আলাদা একটা ফরম্যাট, আলাদা একটা জায়গা। দেশের বাইরে নিজেদের প্রমাণ করার এটা বড় একটা সুযোগ।” ব্যাটিংয়ে টপ অর্ডারের কাছই বেশি প্রত্যাশা সাকিবের।

অন্যদিকে, নাসিরের হোসেনের মতে, জিততে হলে তিনশোর বেশি রান করতে হবে টাইগারদের। একইসাথে তিনি মনে করেন, এই উইকেটে মুস্তাফিজ-রুবেলদের অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হবে দ্রুত উইকেটের প্রত্যাশায়।তিনি আরও বলেন, “আমরা জয়ের জন্যই মাঠে নামবো। বাকিটা মাঠের ক্রিকেটের উপরে। শেষবার ওরাও আমাদের দেশে সিরিজ হেরেছিল ২-১ এ। কন্ডিশন বড় ভূমিকা রাখে অবশ্যই।”

ছবিঃ গুগল

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com