অপেক্ষা এখন মূল লড়াইয়ের

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীমঃ বেনোনিতে প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে অপেক্ষা এখন মূল লড়াইয়ের। সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে পচেফস্ট্রুমে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল ।২৮ সেপ্টেম্বর প্রথম টেস্টে মুখোমুখি হবে দু’দল।সাব্বির বলেছেন, প্রস্তুতি ম্যাচের আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে পচেফস্ট্রুমে দারুণ কিছু করতে চায় দল। তামিম-সৌম্যের চোটে অস্বস্তি থেকে গেলেও চোট গুরুতর নয় বলে নিশ্চিত করেছেন বিসিবির ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহন। তামিম , সৌম্য খেলবেন সিরিজের প্রথম টেস্ট।আজ সোমবার অনুশীলনে নামবে বাংলাদেশ দল । তবে বেনোনির প্রস্তুতি ম্যাচে চুড়ান্ত ভাবে ব্যার্থ হয়েছন রিয়াদ আর লিটন দাস।

টেষ্ট শুরুর আগেই বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুশফিকের জন্য আইসিসির সুখবর ।ব্যাটিং গড়ের দিক থেকেও এই বছরের দ্বিতীয় সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিক। যদিও সেরা পাঁচে থাকা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলেছেন টাইগার অধিনায়ক।দক্ষিন আফ্রিকায় প্রস্তুতি ম্যাচেও রান পেয়েছেন মুশফিক। ছয় ম্যাচের ১২ ইনিংসে তিনটা ফিফটি ও দুই সেঞ্চুরিতে ৬৭৩ রান করেছেন মুশফিক। সেঞ্চুরি দুটো এসেছে ওয়েলিংটন ও হায়দ্রাবাদ টেস্টে। ব্যাটিং গড় ৬৮ এর কাছাকাছি।

সেরা ব্যাটসম্যানদের তালিকায় মুশফিকের উপরে রয়েছেন ৭ টেস্ট খেলা অজি অধিনায় স্মিথ।
১৪ ইনিংসে ৫৪ গড়ে ৭০১ রান করে চতুর্থ অবস্থানে আছেন তিনি। ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট ৭ টেস্টে ১২ ইনিংসে ব্যাট করে ৬০ গড়ে ৭২৯ রান করে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। দ্বিতীয় স্থানে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনার ডিন এলগার। নয় টেস্টে ১৭ ইনিংসে ৪৫ গড়ে ৭৬৭ রান করেছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। শীর্ষে আছেন চেতেশ্বর পুজারা, ৮ টেস্টের ১৩ ইনিংসে ৮৫১ রান করেছে ২০১৭ সালের শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছেন এই ভারতীয়।রানের দিক থেকে পাঁচে আছেন বাংলাদেশের মুশফিক।

টেস্টে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে এগিয়ে রাখা হয়েছে প্রোটিয়াদেরই।অবশ্য বিষয়টা মানতে নারাজ বাংলাদেশ টেষ্ট অধিনায়ক মুশফিক।তিনি বলেন ,’আমরা কন্ডিশনের সঙ্গে দ্রুতই মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। এই কন্ডিশনে আমাদের একাধিক স্পিনার ভালো করবে বলে মনে হচ্ছে। যদি স্পিনাররা ভালো জায়গায় বল ফেলতে পারে তাহলে তারাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেবে। উইকেটে যদি এতটুকুও স্পিন ধরে, আমি আশাবাদী ভালো কিছু আমাদের পক্ষেই আসবে। আমাদের তরুণ ক্রিকেটাররা খুব দ্রুত সিনিয়রদের সাথে মানিয়ে নেয়। ওরা জানে ওদের দায়িত্ব কি, দলের জন্য কি করতে হবে। সাকিব না থাকায় দলের সবাই নিজেদের দায়িত্ব সম্পর্কে সজাগ।’

সাউথ আফ্রিকার কন্ডিশনে যে ব্যাটিং করা কঠিন তা শিকার করলেন ২০০৮ সালে সাউথ আফ্রিকা সফরে যাওয়া নাঈম ইসলাম।তিনি বলেন ,’দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে টেস্ট খেলা যে কোনও দলের জন্যই চ্যালেঞ্জের। আমাদের জন্যও সহজ হবে না। যদিও বাংলাদেশ দল খুব ভালো ফর্মে আছে। তাছাড়া বেশকিছু দিন ধরে ভালা ক্রিকেট খেলছে। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই দারুণ একটা সিরিজ উপহার দেবে বলে আমার বিশ্বাস।’ নাঈম আরো বলেন ,’ টেস্টে আমার মনে হয় না বাংলাদেশ খুব একটা ভাল করতে পারবে। কেননা তাদের উইকেট একটু বিচিত্র। তবে আমার মনে হয় মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল ওয়ান্ডে সিরিজে ঘুরে দাঁড়াবে।’

ছবিঃ ইএসপিএন

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com