অটোয়ায় স্বপ্নীল সজীব…

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সুলতানা শিরীন সাজি

(অটোয়া থেকে): ২১ এপ্রিল’২০১৭,শুক্রবার ‘বৈশাখী সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা’য় , দুই বাংলায় জনপ্রিয়, বাংলাদেশের তরুণ সঙ্গীতশিল্পী স্বপ্নীল সজীব গাইলেন রবীন্দ্রসঙ্গীত এবং বাউল গান।বৃষ্টি ঝরা সন্ধ্যায় ‘পালকী’তে অটোয়ার সুধীজনদের উপস্থিতিতে জমে উঠছিল গানের আসর। ‘আমার পরাণ যাহা চায়’ গেয়ে স্বপ্নীল শুরু করেন  অনুষ্ঠান।এরপর একে একে গেয়ে চলেন জনপ্রিয় সব রবীন্দ্রসংগীত আর বাউল গান।মিলন হবে কতদিনে,ফুলে ফুলে ঢোলে ঢোলে, সকাতরে ঐ কাঁদিছে সকলে, পাগলা হাওয়ার বাদল দিনে,আমি চিনি গো চিনি সহ আরো অনেক প্রিয় গানের সঙ্গে একাত্ম হয়ে গাইতে থাকে সবাই। সুলতানা শিরীন সাজির কবিতা ‘ভালোবাসা’র সঙ্গে স্বপ্নীল যুগল বন্দী করেন ‘সখী ভাবনা কাহারে বলে’ গেয়ে। অনুষ্ঠান শেষ হয়েও যেনো স্বপ্নীল এর গানের রেশ থেকে গেলো। স্বপ্নীল এর সঙ্গে যাদুকরী তবলায় ছিলেন,টরন্টো থেকে আগত তানজীর আলম রাজীব।অনুষ্ঠান সঞ্চালণা এবং আবৃত্তিতে শিরীন সাজি।

অটোয়ার বৈশাখী মেলার ঠিক একদিন আগে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হবার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দেওয়ান শাহীন চৌধুরী।অটোয়ার দর্শকদের নিয়ে স্বপ্নীল সজীব বলেন, অটোয়ার গানপ্রেমী সুধী জনদের সামনে গান গাইতে পেরে তার ও খুব ভালো লেগেছে।

অনুষ্ঠান আয়োজনে শিরীন সাজির সঙ্গে ছিলেন সাবিনা সালাম লিন্ডা,জেবীন চৌধুরী,কানিজ ফাতিমা পাখি,নুরুন বেগম নীলা,তানজিবা রব সূচী,জাহিদা বেগম মিতা। এছাড়া বেলায়েত হোসেন,আলী রহমত,কলি, রেখা(ম্যাক আর্থার হালাল গ্রোসারী),মিঠু মোহাম্মদ,আয়ানবুটিক,জিপসী(Gipsy’s Creationz) ছাড়াও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অনুষ্ঠানের জন্য স্পন্সর করেন।

ছবি: সিলভিয়া জালাল এবং মিঠু মোহাম্মদ

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন amar@pranerbangla.com